শ্রীপুরে কলেজ পড়ুয়া ছাত্র কে মারধর থানায় অভিযোগ।


deshsomoy প্রকাশের সময় : ২০২৩-১০-০২, ৫:৫২ অপরাহ্ন /
শ্রীপুরে কলেজ পড়ুয়া ছাত্র কে মারধর থানায় অভিযোগ।
print news || Dailydeshsomoy

প্রকাশিত,০২, অক্টোবর,২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক:

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার ২নং গাজীপুর ইউনিয়নের ধনুয়া এলাকায় কলেজ পড়ুয়া ছাত্রকে মারধর করে দুই লক্ষ টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে এই ঘটনায় মোঃ বাদল মিয়া (৩৮) বাদী হয়ে শ্রীপুর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

গত শনিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার ২নং গাজীপুর ইউনিয়নের ধনুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্তরা হলেন, ১,মোঃ আজগর আলী (৩০) ২,মোঃ উজ্জল মিয়া (২৭) পিতা- হাছেন আলী ৩,হাছেন আলী (৬৫) পিতা- মৃত ছায়েদ আলী ৪,মোঃ জহিরুল ইসলাম (৩০) পিতা- ইমান আলী ৫,মোঃ শাহ আলম (২৬) পিতা- মৃত মোতালেব সহ আরও অজ্ঞাত ২/৩ জনকে বিবাদী করে এ অভিযোগ দায়ের করেন। গাজীপুর ইউনিয়নের ধনুয়া গ্রামের ভুক্তভোগীর পিতা বাদল মিয়া।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ধনুয়া এলাকার বাদল মিয়ার ছেলে জাকির হোসেন (১৭) গাজীপুর সেন্ট্রারাল বিজনেজ ম্যাঃ এন্ড টেকনিক্যাল কলজের ইন্টার ১ম বর্ষের ছাত্র জাকির হোসেন , কলেজে যাওয়ার সময়
মামার সাথে দেখা করতে যাওয়ার পথে বিবাদীরা মারধর করেন।

অভিযোগের বাদী বাদল মিয়া বলেন,আমার শ্যালক দুলালকে দুই লক্ষ্য টাকা দেয়ার জন্য দিয়ে দেই সেই টাকা দিয়ে কলেজে‌ যাওয়ার জন্য আমার বাড়ী হইতে বের হয়, যাওয়ার পথে
২ লক্ষ টাকা আমার শালা দুলাল মিয়াকে দেওয়ার জন্য বের হয়। যাওয়ার পথে আজগর আলীর বাড়ীর সামনে যেতেই উল্লেখিত বিবাদী সহ অজ্ঞাত নামা বিবাদীরা পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে ১নং বিবাদী আমার ছেলের পকেটে থাকা ২ লক্ষ টাকা জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেই, উল্লেখিত বিবাদীরা ধারালো রাম দা, লোহার রড ও দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়া আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করিতে থাকিলে ঐ সময় আমার স্ত্রী তাহার পিতার বাড়ী অর্থাৎ আমার শালা দুলালের বাড়ী হইতে আসার পথে উক্ত ঘটনা দেখিয়া আগাই আসলে আমার স্ত্রী কে মারপিট শুরু করে তাদের ডাক চিৎকার শুনে আশপাশ থেকে লোকজন আগাইয়া আসিয়া তাদেরকে উদ্ধার করে, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়া যায়।

এ বিষয়ে মোটফোনে জানতে চাইলে আজগর আলী বলেন অনেক দিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল আজ জমি মাপযোগ করার সময় মারামারির ঘটনা ঘটেছে এ বিষয়ে আমরাও থানায় অভিযোগ করেছি।

এ বিষয়ে শ্রীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি এএফ‌এম নাছিম বলেন,
ছিনতাই ও মারপিটের ঘটনায় দুই পক্ষের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।