বাড়ীতে বোমা হামলা, জমি দখল এর বিষয়ে গোমস্তাপুর থানায় মামলা না নেওয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন।


deshsomoy প্রকাশের সময় : ২০২৪-০১-২০, ৯:১৮ অপরাহ্ন /
বাড়ীতে বোমা হামলা, জমি দখল এর বিষয়ে গোমস্তাপুর থানায় মামলা না নেওয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন।
print news || Dailydeshsomoy

প্রকাশিত,২০, জানুয়ারি,২০২৪

ইমাম হাসান জুয়েল, চাঁপাইনবাবগঞ্জঃ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে বাড়ীতে বোমা হামলা, জমি দখল এর বিষয়ে গোমস্তাপুর থানায় মামলা না নেওয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মঙ্গলবার (২০ জানুয়ারী) বিকেল ৩ টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ মডেল প্রেসক্লাব এর হল রুমে এই সংবাদ সম্মেলন করেন, গোমস্তাপুর উপজেলার নয়াদিয়ারী গ্রামের মৃত মোঃ আমানুল্লা আমান এর ছেলে মোঃ সোহেল আমান (৪৬)।
এক লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন,
মোঃ মানিকদিন সিপ্লব (৪৬), ২। মোঃ আব্দুল খালেক (৫২), ৩। মোঃ সানাউল্লাহ (৪৭), ৪। মোঃ তোফায়েল হোসেন (৪৩), সর্ব পিতা- মৃত সাইফুদ্দিন মন্ডল, ৫। মোঃ মামুন (৩৩), পিতা- মোঃ আব্দুল খালেক, ৬। মোঃ আতাউর রহমান (৫৫), পিতা- মৃত ইসমাইল হোসেন, সকলের সাং- নয়াদিয়াড়ী, ডাক- নয়াদিয়াড়ী, খানা- গোমস্তাপুর, ৭। মোঃ রুমি (৪৪), পিতা- মৃত হন্টু সাং। ইসলামপুর, থানা নবাবগঞ্জ সদর, সকলের জেলা- চাঁপাইনবাবগঞ্জ। ১নং হতের ৫নং পর্যন্ত বিবাদীগণ আমার আপন চাচা ও চাচাতো ভাই হইতেছে এবং ৬নং বিবাদী আমার জমির বর্গাদার হইতেছে। উক্ত বিবাদীদের সহিত জমি জমা সংক্রান্তে গত প্রায় ৮ বছর পূর্বে হতে বিরোধ চলিয়া আসিতেছে। বিরোধের প্রেক্ষিতে ১নং হতে ৫নং পর্যন্ত বিবানীদের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করা হয়। যাহার মামলা নং- ১৯৭/২০২১ (নাচোল) এবং মামলা নং ১৮৮/২০২১ (গোমস্তাপুর)। উক্ত মামলা বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন রহিয়াছে। মামলা দায়েরের পর হইতে বিবাদীরা আমাকে ও আমার পিতা আমানুল্লাহ আমান এবং আমার মা সহ পরিবারের লোকজনকে বিভিন্ন হুমকি ধামকি প্রদান করিয়া আসিতেছে ছিলো। গত ১৮/১২/২০২৩ তারিখ বিকাল অনুমান ৪ টার সময় উল্লেখিত বিবাদীরা আমার বাড়ীর সামনে উপস্থিত হইয়া আমার পিতাকে ও আমায় মাকে হুমকি দিয়ে বলে যে, বিজ্ঞ আদালতের মামলা প্রত্যাহার না করিলে যে কোন সময় সুযোগ বুঝে প্রাণে শেষ করিয়া দিবে। আমার পিতা-মাতা অসুস্থ থাকার ফলে বিভিন্ন সময় বাড়ীর বাহিরে চিকিৎসা কাজে যাতায়াতের প্রয়োজনে বাড়ি হতে বাহির হলে বিবাদীরা আমার পিতা-মাতার উপর আক্রমন করার জন্য ষড়যন্ত্র করিতে থাকে। আমার পিতা বিভিন্ন আতঙ্কে গত ০১/০১/২০২৪ তারিখ দিবাগত রাতে মৃত্যুবরণ করেন। আমার পিতা মৃত্যুবরণ করিলে ০১/০১/২০২৪ তারিখ সকাল অনুমান ১০ টার সময় আমার পিতার মৃত দেহ আটক করার পায়তারা করে এবং একই তারিখ বিকাল অনুমান ৪ টার সময় আমার পিতার জানাজা নামাজে উপস্থি হইয়া মামলা প্রত্যাহার না করিলে লাশ দাফন করিতে দিবে না মর্মে হুমকি প্রদান করে। জানাজা নামাজে উপস্থিত লোকজন প্রতিবাদ করিলে। বিবাদীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। বর্তমানে আমার মাতা মোসাঃ রিজিয়া আমান (৬৫) ও আমি সহ আমার পরিবারের লোকজন বিবাদীদের হুমকি ধামকিতে চরম ভীত আতঙ্কে জীবন যাপন করিতেছি। এ অবস্থায় গত মঙ্গলবার ১৬/০১/২০২৪ তারিখ সিপ্লবের নেতৃত্বে রুমি, নাসির সহ ৩০ থেকে ৩৫ জন আমার বাড়িতে বোমা হামলা করে। এছাড়াও বিবাদীরা আমাদের ৫২ বিঘা জমি জবর দখল করে রেখেছে। উক্ত বিষয়ে গোমস্তাপুর থানায় মামলা করতে গেলে গোমস্তাপুর থানার ওসি চৌধুরী যোবায়ের আহম্মেদ মামলা না নিয়ে টাল বাহানা করতে থাকে।
এই সময় উপস্থিত ছিলেন মোঃ সোহেল আমান এর মা মোসাঃ রিজিয়া আমান।

এ বিষয়ে গোমস্তাপুর থানার অফিসার (ইনচার্জ ওসি) চৌধুরী যোবায়ের আহমেদ বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পন্ন মিথ্যা ও ভিত্তিহীন, তাদের জমি জামা নিয়ে বিরোধ চলছে, বোমা হামলা করতে এলাকার কেউ দেখেনি তাহলে সোহেলের কথায় কারো নামে মামলা হয় কি ভাবে, আমি অজ্ঞাত ব্যক্তিদের নামে মামলা নিতে চেয়েছি।