পটিয়ায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় একজনকে কুপিয়ে জখম।


deshsomoy প্রকাশের সময় : ২০২৪-০১-০৮, ৮:১০ অপরাহ্ন /
পটিয়ায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় একজনকে কুপিয়ে জখম।
print news || Dailydeshsomoy

প্রকাশিত,৮, জানুয়ারি,২০২৪

পটিয়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:-

পটিয়ায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় মো.
রায়হান পারভেজ নাঈম (১৭) নামের একজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকরা কিরিচ
দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত নাঈম উপজেলার
কুসুমপুরা ইউনিয়নের গোরনখাইন গ্রামের মো. শফির পুত্র। নৌকার পক্ষে কাজ
করার কারণে সোমবার দুপুরে উপজেলার কুসুমপুরা ইউনিয়নের গোরণখাইনে ঢুকে
অতর্কিতভাবে হামলা করে। আহত নাঈমকে পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে
ভর্তি করা হয়েছে।
জানা গেছে, রবিবার অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পটিয়ায় নৌকার
প্রার্থী মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরীর পক্ষে নির্বাচনে কাজ করেন কুসুমপুরা
ইউনিয়নের গোরনখাইন গ্রামের যুবক নাঈম। ভোট কেন্দ্রে লোকজনকে নিয়ে যাওয়ার
ইস্যুতে স্বতন্ত্র প্রার্থী সামশুল হক চৌধুরীর সমর্থক পারভীন আকতারের
নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ হয়ে ১৩জন হামলা করে। এ ঘটনায় পটিয়া থানায় একটি এজাহার
দায়ের করা হয়েছে। ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর মেম্বার
জানিয়েছেন, তার এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে কিশোর গ্যাংয়ের অত্যাচারে লোকজন
অতীষ্ঠ। তারা প্রায় এলাকার অসহায় মানুষের উপর হামলা করে আসছিল। একাধিকবার
থানা পুলিশকে অবহিত করা হলেও কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। কুসুমপুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকারিয়া ডালিম এর সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার কারণে তার এলাকায়ন একজনকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে । এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি
চলছে।

সেলিম চৌধুরী
পটিয়া প্রতিনিধি
পটিয়া,চট্টগ্রাম।

০৮/০১/২৪ ইং।