দূর্গন্ধে অতিষ্ঠ পথচারী,যাত্রী ও চালকরা কালীগঞ্জে বাইপাশ সড়ক যেন ময়লার ভাগাড়,নোংরা হচ্ছে পরিবেশ।


deshsomoy প্রকাশের সময় : ২০২৪-০৬-০৯, ৫:২৯ অপরাহ্ন /
দূর্গন্ধে অতিষ্ঠ পথচারী,যাত্রী ও চালকরা কালীগঞ্জে বাইপাশ সড়ক যেন ময়লার ভাগাড়,নোংরা হচ্ছে পরিবেশ।
print news || Dailydeshsomoy

প্রকাশিত,০৯,জুন, ২০১৪

মো: মুক্তাদির হোসেন।
স্টাফ রিপোর্টার।

গাজীপুরের কালীগঞ্জের বুকের উপর দিয়ে বয়ে চলা টঙ্গী-নরসিংদী সড়কের কালগীঞ্জ বাইপাস এখন ময়লা-আবর্জনার ভাগাড়ে পরিনত হয়েছে। ভিবিন্ন কল-কারখানা ও বাসা ভাড়ীর,হাট- বাজারের ময়লা-আবর্জনা এনে কালীগঞ্জ পৌরসভা কতৃপক্ষ এখানে স্তুপ আকারে ফেলে রেখেছে। এতে করে নোংরা পরিবেশের সৃষ্টি হচ্ছে এবং ময়লা আবর্জনার দুর্গন্ধের কারনে যানবাহনের যাত্রী,পথচারী ও স্থানীয় বাসিন্দারা অতিষ্ট হয়ে পড়েছে।
সরজমিনে গিয়ে দেখাযায়,কালীগঞ্জ পৌরসভায় বর্জ্য শোধানাগার না থাকায় গত কয়েক বছর ধরে ময়লা-আবর্জনা ফেলায় কালীগঞ্জ বাইপাশের বালীগাঁও এলাকা এখন বর্জ্যরে ভাগাড়ে পরিনত হয়েছে। পৌর সভার ময়লার গাড়ীতে করে প্রতিনিয়ত এখানে এনে ময়লা-আবর্জনা ফেলা হচ্ছে। এসব বর্জের বিষাক্ত গ্যাসে সড়কের দুই পাশের বড় বড় গাছপালা মরে যাওয়ার ফলে প্রতিনিয়ত পরিবেশ দূষন হয়ে বাড়ছে স্বাস্থ্যঝুকি। টংগী-কালীগঞ্জ বাইপাস সড়কটি শহীদ ময়েজউদ্দিন সেতু পাড় হয়ে নরসিংদী জেলার পাচঁদোনায় গিয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সাথে মিলিত হওয়ায় এখান দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার গাড়ী চলাচল করায় এই সড়কটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন একটি সড়ক হিসেবে পরিনত হয়েছে। যানবাহনের চালক,যাত্রী,পথচারী,স্কুল কলেজের শীক্ষার্থীরা ময়লা-আবর্জনার স্থান পার হওয়ার সময় দুর্গন্ধ সহ্য করতে না পেরে নাকে কাপড় কিংবা টিস্যু পেপার দিয়ে নাক চেপে যেতে বাধ্য হয়। কোন কোন সময় এসব ময়লার মধ্যে বিভিন্ন ধরনের জীব-জন্তু ও পশু-পাখির মৃতদেহ পরে থাকে। তাছাড়াও এই ময়লা-আবর্জনার মধ্যে থেকে টোকাই ছেলে/মেয়েরা তাদের প্রয়োজনীয় জিনিস খোঁজে নিয়ে যেতে দেখাযায়। এসব বর্জ্যরে কারণে আশেপাশের এলাকার বাতাস দূষিত হচ্ছে। সড়কের পাশে রাখা বর্জ্যরে দূগন্ধে চরম ভোগান্তিতে রয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।
বাইপাস দিয়ে যাওয়া মোটরসাইকেল চালক পারভেজ জানায়, আমি এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন আশা যাওয়া করি,বাইপাসের এই যায়গায় আসলে ভয়ে আতকে উঠি,রাস্তার পাশ্বে বর্জ্য থাকার কারনে পাগলা কুকুরের দল রাস্তার উপরে ছুটাছুটি করে। এতে করে মোটরসাইকেল আরোহীরা প্রায় সময়ই দূর্ঘটনার স্বীকার হয়।কিছু দিন পূর্বে পাশ্ববর্তী নরসিংদী জেলার চরসিংন্দুর বাজারের ব্যাবসায়ী সালাউদ্দিন নামের এক যুবক এই খানে কুকুরের সাথে ধাক্কা লেগে দূর্ঘটনার শিকার হয়ে বর্তমানে পঙ্গু জীবন যাপন করছে,অনেক সময় পাগলা কুকুরের দল গাড়ির পিছন দিয়ে দৌড়ে আসলে চালক তার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বড় গাড়ীর সাথে এক্সিডেন্ট করে ঘটনাস্থলে আনেকেই মৃত্যু বরন করেছে।
ময়লার স্তুপের কাছাকাছি বালীগাও এলাকার বাসিন্দা মোঃ নয়ন মিয়া বলেন,এখানে বর্জ্য ফেলার কারনে প্রচুর দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়,তাছাড়া ময়লাতে আগুন দিলে কুয়াশার মতো ধুয়া ঘরের ভিতরে চলে আসলে চোখ জ্বালাপোড়া করে এবং সবার শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। এই দুর্গন্ধের ফলে এখন আমাদের বাসা বাড়ীতে কেউ ভাড়া নিতে আসেনা যার ফলে এই এলাকার মানুষ অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ময়লার স্তুপের মশা মাছি বাড়ীর বিভিন্ন খাবার দাবারে চলে আসে।
কালীগঞ্জ পৌরসভার কনজারভেন্সী পরিদর্শক সারোয়ার উসমান বলেন, পৌরসভায় নির্দিষ্ট কোন জায়গা না থাকায় বাধ্য হয়ে বাইপাসের এই জায়গাতে ময়লা ফেলা হচ্ছে। গত মিটিংয়েও এ সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে জমি ক্রয় করে ময়লা সরানোর ব্যাবস্থা করা হবে।
কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইমাম রাজী টুলু বিষয়টির জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আমরা মেয়রের সাথে কথা বলে ডাপিং গ্যারেজ স্থাপন করার চেষ্টা করছি। জনগণের ভোগান্তি লাঘবে দ্রুত সময়ে ময়লার স্তূপ সরানোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।