গলাচিপায় আইপিএম পদ্ধতিতে বেগুন উৎপাদন শীর্ষক কৃষক মাঠ দিবস।


deshsomoy প্রকাশের সময় : ২০২৪-০২-২০, ১০:৫১ অপরাহ্ন /
গলাচিপায় আইপিএম পদ্ধতিতে বেগুন উৎপাদন শীর্ষক কৃষক মাঠ দিবস।
print news || Dailydeshsomoy

প্রকাশিত,২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালীর গলাচিপায় আইপিএম পদ্ধতিতে বেগুন উৎপাদন শীর্ষক কৃষক মাঠ দিবস সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৪টায় উপজেলার পানপট্টি ইউনিয়নের ডাকাতিয়া সেন্টার বাজারের গ্রামর্দ্দন গ্রামে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ফিড দ্য ফিউচার লিমিটের ম্যানেজম্যান্ট অ্যাক্টিভিটি এন্ড আইপিএম বাংলাদেশ লিমিটেডের আয়োজনে এবং ইউএসওআডি মিশন বাংলাদেশ এর অর্থায়নে সমন্বিত বালাই ব্যবস্থাপনা পদ্ধতিতে (আইপিএম) বিষমুক্ত বেগুন চাষে উদ্বুদ্ধ করার জন্য কৃষক মাঝে এ সভার আয়োজন করা হয়। প্রথমবারের মতো বেগুন চাষে পরিবেশবান্ধব পদ্ধতি ব্যবহার করে সফলতা পাচ্ছে প্রান্তিক কৃষকরা। ক্ষতিকর পোকামাকড় দমনে রাসায়নিক কীটনাশকের পরির্বতে ব্যবহার করা হচ্ছে সেক্স ফেরোমোন ফাঁদ, হলুদ আঠালো ফাঁদ, মালচিং পেপার, জৈব বালাইনাশক-ইকোমেকস, বায়োশিল্ড, বায়োএনভির ইত্যাদি।

প্রকল্পভুক্ত কৃষকেরা নিরাপদ সবজি উৎপাদনের জন্য বিনামূল্যে জৈব বালাইনাশক, সেক্স ফেরোমোন ফাঁদ ও হলুদ আঠালো ফাঁদ পাচ্ছেন। এসব ব্যবহার পদ্ধতির ওপর কৃষক-কৃষাণীদের সার্বিক দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। শেখানো হয়েছে ফাঁদ স্থাপনের কলা-কৌশল। কৃষকরা জানান, ক্ষেতে রোগ ও পোকামাকড়ের আক্রমণ কম হওয়ায় খরচ অনেক কম হয়েছে। এমনকি ফলনও অনেক সন্তোষজনক হয়েছে। অল্প খরচে এসব সবজি উৎপাদন করতে পেরে খুশি কৃষক।

পানপট্টি ইউনিয়নের গ্রামর্দ্দন গ্রামের বেগুন চাষি কামাল মিয়া বলেন, আমি জমিতে নিরাপদ উপায়ে বেগুন চাষ করেছি। সেখানে কোনো ধরনের রাসায়নিক স্প্রে করিনি, ফলন অনেক ভালো হয়েছে। আগামীতেও নিরাপদ উপায়ে ফসল উৎপাদন বাড়াব। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আক্রাম হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পানপট্টি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. মাসুদ রানা, মনিটারি রিভিউ মিশন এন্ড লার্নিং কনসালটেন্ট মো. হেদায়তুল্লাহ, ইউনিয়ন সহকারি কৃষি কর্মকর্তা জাকির হাসান, মাঠ সহায়ক মো. মাহবুব আলম, মো. মাসুম বিল্লাহ প্রমুখ। এ সময় প্রধান অতিথি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আক্রাম হোসেন বলেন, পরিবেশবান্ধব কৌশলের মাধ্যমে বেগুন উৎপাদনের জন্য পানপট্টি ইউনিয়নে বর্তমান ফলোআপ কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। এখানে সম্পূর্ণ আইপিএম পদ্ধতি ব্যবহার করেই বেগুন উৎপাদন করা হচ্ছে। নিরাপদ উপায়ে বেগুন চাষের জন্য কৃষকদের মোটিভেশনের পাশাপাশি বিভিন্ন কৃষক সমাবেশের আধুনিক জৈব প্রযুক্তি সম্পর্কে জানানো হচ্ছে এবং জনগণকেও সচেতন করা হচ্ছে।