কালীগঞ্জে ভ্রাম্যমান আদালতে ৪ মামলা, জরিমানা আদায়।


deshsomoy প্রকাশের সময় : ২০২৪-০২-০৭, ৮:১৩ অপরাহ্ন /
কালীগঞ্জে ভ্রাম্যমান আদালতে ৪ মামলা, জরিমানা আদায়।
print news || Dailydeshsomoy

প্রকাশিত,০৭, ফেব্রুয়ারি,২০২৪

মোঃ মুক্তাদির হোসেন।
স্টাফ রিপোর্টার।

গাজীপুরের কালীগঞ্জে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ মোতাবেক ৩টি মামলায় ২ লাখ এবং ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০১৩ মোতাবেক ১টি মামলায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মোট চারটি মামলায় ২ লাখ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারী) উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্টেট উম্মে হাফছা নাদিয়া থানার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে সকালে উপজেলার বাহাদুরসাদী ইউনিয়নের ইশ্বরপুর ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্টেট উম্মে হাফছা নাদিয়া বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ মোতাবেক ৩টি মামলায় ইশ্বরপুর গ্রামের মো. বিল্লাল হোসেনের ছেলে মো. সলিম উল্লাহকে (৩০) এক লাখ, দক্ষিণবাগ গ্রামের মো. অরিফুল ইসলামের ছেলে মো. নাদিমকে (৩২) পঞ্চাশ হাজার, কালীগঞ্জ পৌরসভার বালীগাঁও গ্রামের মৃত রকিব আলীর ছেলে মো. সাইফুল ইসলাম (৩২) পঞ্চাশ হাজার টাকা এবং ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০১৩ মোতাবেক তুমলিয়া ইউনিয়নের উত্তর সোম গ্রামের মো. আনোয়ার হোসেনের ছেলে বিজয় মিয়া (৩৫) ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মোট ৪টি মামলায় ২ লাখ ২০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করে ভ্রাম্যমান আদালত।
অন্যদিকে বুধবার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্টেট মো. আজিজুর রহমান থানার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে কালীগঞ্জ বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্টেট মো. আজিজুর রহমান মৎস সংরক্ষণ ও সুরক্ষা আইন ১৯৫০ এর ৪ ধারা অনুযায়ী ১টি মামলায় ২ হাজার টাকা ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৩৮ ধারা অনুযায়ী ১টি মামলায় ৩ হাজার টাকা মোট ৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন ভ্রাম্যমান আদালত। এ সময় বেঞ্চ সহকারী মাহবুবুল ইসলাম ও মেহেদী জামান, কালীগঞ্জ থানা পুলিশ ও আনসার সদস্য উপস্থিত ছিলেন। কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আজিজুর রহমান আমাদের প্রতিনিধিকে বলেন পরবর্তী সময়ে ও মোবাইল কোর্ট অব্যাহত থাকবে।