ইতিহাসের কলঙ্কজনক অধ্যায়  জেল হত্যা দিবস – বদিউল আলম।


deshsomoy প্রকাশের সময় : ২০২৩-১১-০৩, ১০:৩১ অপরাহ্ন /
ইতিহাসের কলঙ্কজনক অধ্যায়   জেল হত্যা দিবস – বদিউল আলম।
print news || Dailydeshsomoy

প্রকাশিত,০৩, নভেম্বর,২০২৩

সেলিম চৌধুরী, পটিয়া চট্টগ্রামঃ

৩ রা নভেম্বর জেলহত্যা দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন সমূহ পটিয়ার উদ্যোগে শুক্রবার দুপুরে হযরত শাহজাহান আউলিয়া (রহঃ) এর মাজার প্রাঙ্গণে আলোচনা সভা, মিলাদ, দোয়া মাহফিল ও তবারুক বিতরণ করা হয়েছে।

প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী যু্লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, চট্টগ্রাম-১২ পটিয়া আসনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী জননেতা মুহাম্মদ বদিউল আলম।

প্রধান বক্তা ছিলেন সাবেক ছাত্রনেতা ও শিশু সংগঠক মোহাম্মদ সাহাব উদ্দিন।

পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব শাহজাহান চৌধুরীর সভাপতিত্বে সঞ্চালনা করেন পটিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম জুয়েল।

বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ ইসহাক, ইকবাল হোসেন, মোঃ রোকন, মোঃ আরিফ, মোঃ খোরশেদ, যুবলীগ নেতা সিদ্ধার্থ বড়ুয়া, শাহাবুদ্দীন সাদী, আবু তৈয়ব, আবদুর শুক্কুর, সাইফুল ইসলাম রাসেল, ছোটন আচার্য্য, বাদশা মিয়া, ছাত্রলীগ নেতা সাজ্জাদ হোসাইন প্রমূখ।

মুহাম্মদ বদিউল আলম বলেন, ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর বাঙালি জাতির ইতিহাসের এক ভয়াবহ কলঙ্কের দিন। স্বাধীনতা বিরোধীরা ৭৫ এর ১৫ আগস্ট বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্ব-পরিবারে হত্যার পর জাতিকে চিরতরে নেতৃত্বশূন্য করতে ৩ নভেম্বর জাতীয় চার নেতাকে জেলখানার ভেতরে নির্মমভাবে হত্যা করে। যা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর হত্যার পর জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করে দেশে সাম্প্রদায়িকতার বীজ ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছিল। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এই চার সূর্য সন্তান দেশের স্বাধীনতার ইতিহাস রচনায় যে অপরিসীম ভূমিকা রেখেছেন সেই ঋণ শোধ হবার নয়। আর এই ধরণের বর্বরোচিত হত্যাকান্ড পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল। তাই সব গণতান্ত্রিক, দেশপ্রেমিক ও অসাম্প্রদায়িক শক্তিকে এক হয়ে উগ্র সাম্প্রদায়িক অপশক্তির মূলোৎপাটন করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ শেষে মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা মইন উদ্দীন।উল্লেখ্য, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করার পর ৩ নভেম্বর তার ঘনিষ্ঠ চার সহকর্মী সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দীন আহমদ, এম মনসুর আলী ও এ এইচ এম কামরুজ্জামানকে কারাগারের অভ্যন্তকরে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

সেলিম চৌধুরী
 পটিয়া প্রতিনিধি
পটিয়া চট্টগ্রামঃ

০৩/১১/২০২৩ ইং।